মতলব উত্তরে মাদক ব্যবসায় বাঁধা দেয়ায় হামলা, আহত ৩

মতলব উত্তরে মাদক ব্যবসায় বাঁধা দেয়ায় হামলা, আহত ৩

মতলব উত্তরে মাদক ব্যবসায় বাঁধা দেয়ায় হামলা, আহত ৩

মতলব উত্তর উপজেলার বিনন্দপুর গ্রামে মাদক ব্যবসায় বাঁধা দেয়ার ঘটনায় হামলা ও মারধরে গুরুত্বর আহত হয় ৩ জন। আহতরা হলো- বিনন্দপুর গ্রামের শাহ আলম বেপারীর ছেলে হাফেজ শাহাব উদ্দিন (১৯), মৃত. বাচ্চু মিয়া বেপারীর ছেলে আকতার হোসেন (৪২) ও আমির হোসেন (২৮)। আহতরা মতলব উত্তর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জরুরী বিভাগে চিকিৎসা নিয়েছে। রোগীর অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার বিনন্দপুর গ্রামের জামশেদ ঢালীর বাড়িতে কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী একাধিক মাদক মামলার আসামী জয়নাল বেপারী (৩২) দলবল নিয়ে অনধিকার প্রবেশ করে হাফেজ শাহাব উদ্দিন, আকতার হোসেন ও আমির হোসেনের উপর দা, ছুরি, ছেনা, লোহার রড ও দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে হামলা করে। জয়নাল বেপারী বিনন্দপুর গ্রামের মৃত. মনির হোসেন বেপারীর ছেলে। এ সময় বিনন্দপুর গ্রামের লিয়াকত আলী বকাউলের ছেলে নাজমুল বকাউল, দুলাল বকাউলের ছেলে নাজির বকাউল, চাঁন বক্স বকাউলের ছেলে রেজাউল বকাউলের নেতৃত্বে ৪০ থেকে ৫০ জনের সন্ত্রাসী গ্রুপ এ হামলা করে।

হামলায় হাফেজ শাহাব উদ্দিনকে হত্যার উদ্দেশ্যে মাথায় আঘাত করলে রক্তাক্ত কাটা জখম হয়। শরীরের বিভিন্ন অংশে লীলাফুলা জখমসহ গুরুত্বর আহত হয়। এছাড়াও আকতার হোসেন ও আমির হোসেনের শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাতপ্রাপ্ত হয়।

আকতার হোসেন জানান, জয়নাল বেপারী আমাদের একই বাড়ির, তার সাথে জমি-জমা নিয়ে বিরোধ চলছিল। সে বাড়িতে থেকে মাদক ব্যবসা করে থাকে, মাদক ব্যবসা বন্ধ করার কথা বললে এ নিয়ে বিরোধ হয়। আমরা গ্রামের শালিস জামশেদ ঢালীর বাড়িতে এ বিষয়ে কথা বলতে গেলে জয়নাল বেপারী বাইশপুর, টরকী’সহ বিভিন্ন গ্রামের উঠতি বয়সে লোকজন নিয়ে আমাদের উপর দা, ছুরি, ছেনা, লোহার রড ও দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে আক্রমন করে। 
এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছিল।

চাঁদপুর টুডে/নাঈম মিয়াজী/এফএস
পাঠকের মন্তব্য