চাঁদপুরে মাদ্রাসাছাত্রের মস্তকবিহীন মরদেহ উদ্ধার

চাঁদপুরে মাদ্রাসাছাত্রের মস্তকবিহীন মরদেহ উদ্ধার

চাঁদপুরে মাদ্রাসাছাত্রের মস্তকবিহীন মরদেহ উদ্ধার

চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলায় সোহেল রানা (১৭) নামে এক মাদ্রাসাছাত্রের মস্তকবিহীন মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার (১৯ আগস্ট) দুপুরে নন্দীখোলা একটি পুকুর পাড় থেকে মতলব থানা পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে। সোহেল নায়েরগাঁও উত্তর ইউনিয়নের নন্দীখোলা সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার ৯ম শ্রেণির ছাত্র।

নিহত সোহেল রানার মা সামছুন নাহার বলেন, আমার ছেলে রবিবার (১৮ আগস্ট) রাতের খাবার খেয়ে পাশের হাজী বাড়ির খৎনা অনুষ্ঠানে যাবে বলে ঘর থেকে বেরিয়ে যায়। আমার বড় ছেলে ওই খৎনা অনুষ্ঠানের গান বাজনা শুনে রাত ২টার সময় ঘরে ফেরে। কিন্তু সোহেল রানা তখনো ঘরে ফেরে নাই। বড় ছেলে বলে, এসে পড়বে সবাই ঘুমিয়ে পড়ি। সকালেও ঘরে না ফিরলে আমি আশপাশে খোঁজ খবর নেই।

সোহেলের বাবা জমির হোসেন বলেন, অনেক খোঁজাখুঁজি করেও না পেয়ে দুপুর ১২টার দিকে আমি ও আমার শ্যালক আবুল কালামসহ তার নতুন বাড়িতে খোঁজ করতে যাই। সেখানেও ঘরে তাকে না পেয়ে পার্শ্ববর্তী পুকুর পাড়ে তাকালে দেখি পোশাক পরিহিত একটি দেহ পড়ে আছে। ওখানে গিয়ে দেখি আমার সোহেলের মস্তকবিহীন নিথর দেহটাই শুধু পড়ে আছে। আমার চিৎকারে আশপাশের লোকজন জড়ো হয়।

তিনি আরো বলেন, বিষয়টি আমি তাৎক্ষণিক পুলিশকে অবহিত করি। পরে থানা পুলিশ সোহেলের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

এদিকে মতলব দক্ষিণ পুলিশসহ চাঁদপুর থেকে ডিএসবি, পিবিআই ঘটনাটির তদন্ত শুরু করেছে।

পিবিআই পুলিশ পরিদর্শক মো. মাহবুব বলেন, সোহেলের মাথা আলাদা, দেহের বাম দিকে ক্ষত চিহ্ন রয়েছে এবং গায়ে শুধু জামা ছিল।

মতলব দক্ষিণ থানার ওসি স্বপন কুমার আইচ বলেন, সোহেলের বাবার ধারণা তার শ্যালক আবুল কালাম সোহেলকে নতুন এন্ড্রয়েড মোবাইল কিনে দিয়েছে। ওটার জন্যই হয়তো তাকে কেউ মেরে ফেলেছে। এছাড়াও অনেক বিষয় আছে সেগুলো নিয়েও কাজ করছি।

পাঠকের মন্তব্য