ফরিদগঞ্জে কৃষি ব্যাংকের প্রতারনার অভিযোগ

ফরিদগঞ্জে কৃষি ব্যাংকের প্রতারনার অভিযোগ

ফরিদগঞ্জে কৃষি ব্যাংকের প্রতারনার অভিযোগ


বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক ফরিদগঞ্জ শাখায় ক্ষমতার অপব্যবহারের মাধ্যমে প্রতারণা, জালিয়াতির আশ্রয় নিয়ে ভুয়া ঋণ বন্ড তৈরি করে ব্যাংকের কতিপয় অসাধু কর্মকর্তা গ্রাহকের নামে ঋণ উত্তোলন করে অর্থ আত্মসাৎ করার অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে হয়রানির শিকার মোঃ হোসেন মিজি নামে এক ব্যক্তি প্রতিকার চেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে লিখিত আবেদন করেছেন।

 


উপজেলার রূপসা উত্তর ইউনিয়নের ভাটেরহদ গ্রামের মৃত ইসহাক মিজির ছেলে মোঃ হোসেন মিজি জানান, ব্যাংক থেকে কখনো ঋণ উত্তোলন করিনি। কিন্তু আমাকে কৃষি ব্যাংক কর্তৃপক্ষ ভুয়া ঋণ দেখিয়ে টাকা পরিশোধের জন্যে নোটিস পাঠায়। নোটিস পেয়ে আমি ব্যাংক ম্যানজারকে অবহিত করলে তিনি বলেন, আপনার নামে ঋণ রয়েছে। আপনি ঋণের টাকা পরিশোধ করতে হবে। আমি নিরূপায় হয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে প্রতিকার চেয়ে লিখিত আবেদন করি।

 


এছাড়াও একই এলাকার বকসিবাড়ির খলিলুর রহমানের ছেলে জাহাঙ্গীর হোসেন ও আবদুর রহমানের ছেলে প্রবাসী শফিউল্যাহ জানান, আমরা উক্ত ব্যাংক শাখা থেকে কখনো কোনো ধরনের ঋণ উত্তোলন করিনি। আমাদের নামে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ ভুয়া ঋণ দেখিয়ে ঋণের টাকা পরিশোধর জন্যে নোটিস প্রদান করে। কে বা কারা যেনো আমাদের নামে ভুয়া ঋণ নিয়ে এই ধরনের জালিয়াতির ঘটনা ঘটিয়েছে।

 


ভাটেরহদ এলাকার মৃত মুসলিম মিয়ার ছেলে মোঃ বাচ্ছু মিয়া জানান, আমাকে ঋণ দিয়ে ১০ হাজার টাকা খরচ বাবদ রেখে দেয় ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। এ ধরনের আরও অনেকের অভিযোগ রয়েছে এ ব্যাংক শাখাটির বিরুদ্ধে।

 


এ বিষয়ে কৃষি ব্যাংক ম্যানাজার মোঃ জাহিদুল ইসলাম মোঃ হোসেনের নামে ভুয়া ঋণ প্রদানের সত্যতা স্বীকার করে জানান, ঋণটি পরিশোধ হয়েছে। তবে এ ঋণ আমার সময়কালের নয়।

 


ফরিদগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শিউলী হরি জানান, ঘটনার সত্যতা পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

পাঠকের মন্তব্য